Sale!

যেমন কর্ম তেমন ফল । jemon kormo tamon fol

Original price was: 2,500.00৳ .Current price is: 2,250.00৳ .

<h2>সরাসরি কিনতে ফোন করুন:”color: #0000ff;”> 01622913640

>> সারাদেশে ক্যাশ অন ডেলিভারি করা হয় !&amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;amp;lt;/p&amp;amp;gt;&amp;amp;lt;p&amp;amp;gt;&amp;amp;gt;&amp;amp;gt; ডেলি

ভারি

খরচ ঢাকার মধ্যে 60 ঢাকার বাইরে  ১০০ টাকা !</p>

&gt;প্রোডাক্ট হাতে পেয়ে চেক কর

ে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন !</p>

<p>>> ডেলিভারি খরচ সাশ্রয়

করতে একসাথে কয়েকটি প্রোডাক্ট অর্ডার করুন !&lt;/p>

983 in stock

SKU: (38) ম্যাজিক কনডম কোডঃ 118 Category: Tags: ,

Description

যেমন কর্ম তেমন ফল । এই প্রবাদটি একটি গুরুত্বপূর্ণ নীতিশাস্ত্রের ধারণা যা আমাদের জীবনযাপনের পথ নির্দেশ করে। এর অর্থ হলো, আমরা যে ধরনের কর্ম করবো, তার ফলও আমরা সেই ধরনেরই পাবো। ভালো কর্মের ফল ভালো হবে, আর মন্দ কর্মের ফল মন্দ হবে।

যেমন কর্ম তেমন ফল

এই নীতিটি বিভিন্ন ধর্ম, দর্শন, এবং সংস্কৃতিতে বিদ্যমান। হিন্দু ধর্মে এটি “কর্মফল” নামে পরিচিত, বৌদ্ধ ধর্মে “কর্ম” নামে, এবং ইসলাম ধর্মে “আমল” নামে।

পড়ুনঃ মোটা হওয়ার ইন্ডিয়ান গুড হেলথ কিনতে এখনই ক্লিক করুন

“যেমন কর্ম তেমন ফল” নীতির কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক :

  • নৈতিক দায়িত্ব: এই নীতি আমাদেরকে নৈতিকভাবে জীবনযাপন করতে অনুপ্রাণিত করে। কারণ আমরা জানি যে, আমাদের ভুল কর্মের জন্য আমাদেরই শাস্তি ভোগ করতে হবে।
  • সচেতনতা: এই নীতি আমাদেরকে আমাদের কর্মের প্রতি সচেতন করে তোলে। আমরা যখন জানি যে, আমাদের প্রতিটি কর্মেরই একটি প্রতিক্রিয়া আছে, তখন আমরা সাবধানে ভেবে কাজ করি।
  • প্রেরণা: এই নীতি আমাদেরকে ভালো কর্ম করতে অনুপ্রাণিত করে। কারণ আমরা জানি যে, ভালো কর্মের জন্য আমরা ভালো ফল পাবো।

“যেমন কর্ম তেমন ফল” নীতি আমাদের জীবনে অনেক ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। এই নীতি অনুসরণ করে আমরা সুখী, সফল এবং পূর্ণাঙ্গ জীবনযাপন করতে পারি।

কিছু উদাহরণ:

  • একজন ছাত্র যদি পরিশ্রম করে পড়াশোনা করে, সে ভালো ফলাফল পাবে।
  • একজন ব্যক্তি যদি অন্যদের সাহায্য করে, সে নিজেও সাহায্য পাবে।
  • একজন ব্যক্তি যদি মিথ্যা বলে, সে বিশ্বাস হারাবে।

উপসংহার:

একটি সার্বজনীন নীতি যা সকলের জন্য প্রযোজ্য। এই নীতি অনুসরণ করে আমরা আমাদের জীবনকে আরও উন্নত করতে পারি।

একটি প্রাচীন নীতি যা বিভিন্ন ধর্ম, দর্শন ও সংস্কৃতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

এই নীতির মূল বার্তা হল: আমরা যেসব কাজ করি, তার ফল আমাদের অবশ্যই ভোগ করতে হবে। ভালো কাজের ভালো ফল এবং মন্দ কাজের মন্দ ফল আসবে।

এই নীতির কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক:

  • নৈতিকতার প্রচার: এই নীতি আমাদেরকে নৈতিকভাবে জীবনযাপন করতে অনুপ্রাণিত করে। কারণ ভালো কাজের ভালো ফল আসবে এই বিশ্বাস আমাদেরকে সৎ, ন্যায়পরায়ণ ও সহানুভূতিশীল হতে উৎসাহিত করে।
  • ব্যক্তিগত দায়িত্ব: এই নীতি আমাদেরকে আমাদের কর্মের জন্য দায়িত্বশীল হতে শেখায়। আমরা যদি মন্দ কাজ করি, তাহলে তার ফল ভোগ করতে হবে। অন্যদিকে, যদি ভালো কাজ করি, তাহলে তার সুফল পাব।
  • পুনর্জন্মের ধারণা: কিছু ধর্মে, এই নীতি পুনর্জন্মের ধারণার সাথে যুক্ত। অনুসারে, আমাদের বর্তমান জীবনের কর্ম পরবর্তী জীবনে আমাদের ভাগ্য নির্ধারণ করে।

ব্যবহারিক প্রয়োগ:

  • আমাদের চিন্তাভাবনা ও কর্ম নিয়ন্ত্রণে রাখতে: এই নীতি আমাদেরকে নেতিবাচক চিন্তাভাবনা ও কর্ম এড়িয়ে চলতে সাহায্য করে। কারণ আমরা জানি যে এর মন্দ ফল হবে।
  • অন্যদের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে: এই নীতি আমাদেরকে অন্যদের কষ্ট বুঝতে এবং তাদের প্রতি সহানুভূতিশীল হতে সাহায্য করে। কারণ আমরা জানি যে আমরাও একই পরিস্থিতিতে পড়তে পারি।
  • আমাদের জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণে: এই নীতি আমাদেরকে আমাদের জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণে এবং সেগুলো অর্জনে সাহায্য করে। কারণ আমরা জানি যে আমাদের পরিশ্রম ও উৎসর্গের সুফল পাব।

উপসংহার:

“যেমন কর্ম তেমন ফল” একটি সার্বজনীন নীতি যা আমাদেরকে নৈতিকভাবে জীবনযাপন করতে এবং আমাদের জীবনের সর্বোচ্চ ব্যবহার করতে সাহায্য করে।

একটি প্রাচীন ও সার্বজনীন নীতি

“যেমন কর্ম তেমন ফল” – এই উক্তিটি একটি বহুল ব্যবহৃত প্রবাদ যা আমাদের কর্মের ফলাফল সম্পর্কে একটি গুরুত্বপূর্ণ বার্তা বহন করে। এর অর্থ হল আমরা যে ধরনের কর্ম করি তার ফল আমাদের অবশ্যই ভোগ করতে হবে। ভালো কর্মের ভালো ফল এবং মন্দ কর্মের মন্দ ফল আসবে।

এই নীতিটি বিভিন্ন ধর্ম, দর্শন ও সংস্কৃতিতে পাওয়া যায়। হিন্দু ধর্মে এটি কর্মফল নীতি হিসেবে পরিচিত, বৌদ্ধ ধর্মে এটি কarmānusāra নীতি হিসেবে পরিচিত, এবং ইসলাম ধর্মে এটি ‘আমলনামা’ নীতি হিসেবে পরিচিত।

নীতির গুরুত্ব:

  • নৈতিকতার বোধ জাগ্রত করে: এই নীতি আমাদেরকে নৈতিকভাবে জীবনযাপন করতে অনুপ্রাণিত করে।
  • কারণ আমরা জানি যে আমাদের ভালো কর্মের জন্য ভালো ফল আসবে এবং মন্দ কর্মের জন্য মন্দ ফল আসবে।
  • সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করে: যখন আমরা জানি যে আমাদের কর্মের ফলাফল আছে,
  • তখন আমরা সঠিক ও ন্যায়সঙ্গত সিদ্ধান্ত নিতে বেশি সচেতন থাকি।
  • দায়িত্ববোধ বৃদ্ধি করে: এই নীতি আমাদেরকে আমাদের কর্মের জন্য দায়িত্বশীল হতে শেখায়।
  • আমরা জানি যে আমাদের ভুল কর্মের জন্য আমাদেরই শাস্তি ভোগ করতে হবে।
  • আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি করে: যখন আমরা ভালো কর্ম করি, তখন আমাদের মনে আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পায়।
  • কারণ আমরা জানি যে আমাদের ভালো কর্মের জন্য ভালো ফল আসবে।

নীতির ব্যবহারিক প্রয়োগ:

  • আমাদের প্রতিদিনের জীবনে: আমাদের প্রতিদিনের ছোটো-বড়ো সকল কর্মের ক্ষেত্রে এই নীতিটি প্রযোজ্য।
  • যেমন, আমরা যদি অন্যের প্রতি সহানুভূতিশীল ও সহায়ক হই, তাহলে আমরাও অন্যের কাছ থেকে সহানুভূতি ও সহায়তা পাব।
  • শিক্ষাক্ষেত্রে: শিক্ষার্থীদের মধ্যে ভালো কর্মের গুরুত্ব উপলব্ধি করার জন্য এই নীতিটি ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন, শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদেরকে বলতে পারেন যে যারা নিয়মিত পড়াশোনা করে এবং পরীক্ষায় ভালো ফলাফল করে, তারা ভবিষ্যতে ভালো চাকরি ও জীবনযাপন করতে পারবে।
  • কর্মক্ষেত্রে: কর্মীদের মধ্যে কর্মক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য এই নীতিটি ব্যবহার করা যেতে পারে। যেমন, প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ কর্মীদেরকে বলতে পারেন যে যারা কঠোর পরিশ্রম করে এবং তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করে, তাদেরকে পদোন্নতি ও বেতন বৃদ্ধি দেওয়া হবে।

“যেমন কর্ম, তেমন ফল” – একটি প্রাচীন নীতি যা বিভিন্ন ধর্ম, দর্শন ও সংস্কৃতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

এই নীতির মূল বার্তা হল, আমাদের কর্মের ফল আমাদেরই ভোগ করতে হবে।

ভালো কাজের ভালো ফল এবং মন্দ কাজের মন্দ ফল।

এই নীতির কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক:

  • নৈতিকতার ভিত্তি: “যেমন কর্ম, তেমন ফল” নীতি আমাদের নৈতিক জীবনযাপনের প্রेरणা যোগায়।
  • এই নীতি অনুসারে, আমরা যদি ভালো কাজ করি, তাহলে সমাজে সুখ ও সমৃদ্ধি বৃদ্ধি পাবে।
  • ব্যক্তিগত দায়িত্ব: এই নীতি আমাদেরকে আমাদের কর্মের জন্য দায়িত্বশীল হতে শেখায়।
  • আমাদের জীবনে যা কিছু ঘটে তার জন্য আমরা নিজেরাই দায়ী।
  • পরিবর্তনের সুযোগ: “যেমন কর্ম, তেমন ফল” নীতি আমাদেরকে আশাবাদী করে তোলে। এই নীতি অনুসারে, আমরা যদি চাই তাহলে আমাদের জীবন পরিবর্তন করতে পারি। ভালো কাজের মাধ্যমে আমরা আমাদের ভাগ্যকে উন্নত করতে পারি।

বিভিন্ন ধর্ম ও দর্শনে “যেমন কর্ম, তেমন ফল” নীতির ব্যাখ্যা:

  • হিন্দুধর্মে: এই নীতি কर्मफल নামে পরিচিত। কর্মফল অনুসারে, আত্মা জন্ম-মৃত্যুর চক্রে ঘুরতে থাকে।
  • বৌদ্ধধর্মে: এই নীতি কर्म নামে পরিচিত। কর্ম অনুসারে, আমরা দুঃখ বা সুখ ভোগ করি।
  • ইসলাম ধর্মে: এই নীতি আমল নামে পরিচিত। আমল অনুসারে, আল্লাহ আমাদেরকে জান্নাত বা জাহান্নামে পাঠাবেন।

“যেমন কর্ম, তেমন ফল” নীতির ব্যবহারিক প্রয়োগ:

  • আমাদের দৈনন্দিন জীবনে: এই নীতি আমাদেরকে সৎ, ন্যায়পরায়ণ এবং সহানুভূতিশীল হতে অনুপ্রাণিত করে।
  • আমাদের পেশাগত জীবনে: এই নীতি আমাদেরকে পরিশ্রমী, দায়িত্বশীল এবং নীতিবান হতে সাহায্য করে।
  • আমাদের সামাজিক জীবনে: এই নীতি আমাদেরকে অন্যের প্রতি সহানুভূতিশীল এবং সহযোগিতাপূর্ণ হতে শেখায়।

উপসংহার:

“যেমন কর্ম, তেমন ফল” একটি সার্বজনীন নীতি যা আমাদের জীবনকে আরও সুন্দর ও অর্থপূর্ণ করে তুলতে পারে। এই নীতি আমাদেরকে নৈতিক জীবনযাপন করতে, আমাদের কর্মের জন্য দায়িত্বশীল হতে এবং আমাদের জীবনকে ইতিবাচকভাবে পরিবর্তন করতে অনুপ্রাণিত করে।

ম্যাজিক কনডম কিনতে এখনই ক্লিক করুন

“যেমন কর্ম, তেমন ফল” – একটি প্রাচীন নীতি যা আমাদের জীবনের প্রতিটি দিক স্পর্শ করে।

এই নীতিটি বোঝায় যে, আমাদের প্রতিটি কর্মের একটি ফলাফল থাকে। ভালো কাজের ভালো ফল এবং মন্দ কাজের মন্দ ফল।

এই নীতির কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিক:

  • নৈতিকতার মূলনীতি: এটি আমাদেরকে ন্যায়সঙ্গত, সৎ এবং সহানুভূতিশীল হতে উৎসাহিত করে।
  • ব্যক্তিগত দায়িত্ব: আমাদের নিজেদের কর্মের জন্য দায়িত্ব গ্রহণ করতে শেখায় এবং আমাদের ভুল থেকে শিক্ষা নিতে সাহায্য করে।
  • প্রেরণা: ভালো কাজ করার জন্য আমাদের অনুপ্রাণিত করে, কারণ আমরা জানি যে এর ভালো ফলাফল হবে।
  • কল্যাণ বৃদ্ধি: সমাজে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে সাহায্য করে, কারণ যখন মানুষ ভালো কাজ করে তখন তা অন্যদেরও অনুপ্রাণিত করে।

ধর্ম, দর্শন এবং নীতিশাস্ত্রে “যেমন কর্ম, তেমন ফল” নীতির ব্যাপক প্রভাব রয়েছে।

  • হিন্দু ধর্মে: কর্মফলের ধারণা কেন্দ্রীয় ভূমিকা পালন করে।
  • বৌদ্ধধর্মে: কর্ম নিয়মের ধারণাটি মূলনীতি।
  • খ্রিস্টধর্মে: নৈতিকতার উপর জোর দেওয়া হয় এবং ভালো কাজের জন্য পুরষ্কার এবং মন্দ কাজের জন্য শাস্তির ধারণা রয়েছে।

ব্যক্তিগত জীবনে, আমরা এই নীতিটি ব্যবহার করতে পারি:

  • আমাদের লক্ষ্য অর্জনের জন্য: পরিশ্রম এবং নিষ্ঠার মাধ্যমে আমরা আমাদের লক্ষ্য অর্জন করতে পারি।
  • সুখী এবং সুস্থ জীবনযাপন: ভালো কাজের মাধ্যমে আমরা আমাদের নিজেদের এবং আমাদের চারপাশের মানুষের জীবন উন্নত করতে পারি।
  • বিশ্বকে আরও ভালো জায়গা তৈরি: আমরা যদি সকলেই ভালো কাজ করি তবে বিশ্বকে আরও ন্যায়সঙ্গত, সমৃদ্ধ এবং স্থায়ী জায়গা করে তুলতে পারি।

“যেমন কর্ম, তেমন ফল” একটি শক্তিশালী নীতি যা আমাদের জীবনকে অর্থপূর্ণ করে তুলতে সাহায্য করতে পারে।

এই নীতি মনে রেখে, আমরা আমাদের চিন্তাভাবনা, শব্দ এবং কর্মে আরও সচেতন হতে পারি এবং বিশ্বে ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারি।

পড়ুনঃ  ব্রা – প্যান্টি কিনতে এখনই ক্লিক করুন

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের যোনি টাইট করার ক্রিম কিনতে এখনই ক্লিক করুন

আরো পড়ুনঃ  ম দিয়ে ছেলেদের নাম / ম দিয়ে ছেলেদের  ইসলামিক নাম

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “যেমন কর্ম তেমন ফল । jemon kormo tamon fol”

Your email address will not be published. Required fields are marked *