Sale!

সকলের তরে সকলে আমরা কবিতা

Original price was: 2,900.00৳ .Current price is: 1,500.00৳ .

<h2>সরাসরি কিনতে ফোন করুন:”color: #0000ff;”> 01622913640&lt;/span>

&gt;&gt

; সারাদেশে ক্যাশ অন ডেলিভারি করা হয় !

>> ডেলিভারি খরচ ঢাকার মধ্যে 60 ঢাকার বাইরে  ১০০ টাকা !

>প্রোডাক্ট হাতে পেয়ে চেক করে মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন !

>> ডেলিভারি খরচ সাশ্রয় করতে একসাথে কয়েকটি প্রোডাক্ট অর্ডার করুন !

983 in stock

SKU: (42) ম্যাজিক কনডম কোডঃ 115 Category: Tag:

Description

সকলের তরে সকলে আমরা কবিতা । এই কবিতাটি আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে, আমরা যদি সকলে মিলে কাজ করি, তাহলে আমরা যেকোনো বাধা অতিক্রম করতে পারি এবং একটি আরও ভালো বিশ্ব গড়ে তুলতে পারি।

সকলের তরে সকলে আমরা কবিতা

কবি: কামিনী রায়

পড়ুনঃ মোটা হওয়ার ইন্ডিয়ান গুড হেলথ কিনতে এখনই ক্লিক করুন

কবিতা:

সকলের তরে সকলে আমরা,

প্রত্যেকে আমরা পরের তরে।

হৃদয়ের দানে মুক্তি পাই,

পৃথিবীর বন্ধন ভাঙি যাই।

অর্থ:

এই কবিতার মূল বার্তা হল, আমরা সকলেই একে অপরের সাথে সংযুক্ত এবং একে অপরের প্রতি দায়িত্বশীল। আমাদের সবার উচিত একে অপরের সাহায্য করা এবং একে অপরের জন্য নিজেদেরকে উৎসর্গ করা।

বিশ্লেষণ:

এই কবিতাটি খুবই সহজ ভাষায় লেখা হয়েছে, যা এটিকে সকল বয়সের মানুষের জন্য বোধগম্য করে তোলে। কবিতায় ব্যবহৃত ছন্দ এবং তাল এটিকে মুখস্থ করা সহজ করে তোলে।

কবিতার মূল ভাবটি হল সহানুভূতি এবং সহযোগিতা। কবি আমাদের মনে করিয়ে দেন যে, আমরা সকলেই একই সমাজের অংশ এবং আমাদের একে অপরের প্রতি দায়িত্বশীল।

এই কবিতাটি আজও সমাজের জন্য প্রাসঙ্গিক। আমাদের যুগে, যেখানে আমরা প্রায়শই বিভাজন এবং বিদ্বেষ দ্বারা বিভক্ত, এই কবিতাটি আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে, আমরা সকলেই একই মানবজাতির অংশ এবং আমাদের একে অপরের সাথে ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত।

উপসংহার:

“সকলের তরে সকলে আমরা” একটি সুন্দর এবং শক্তিশালী কবিতা যা আমাদের সকলকে সহানুভূতি, সহযোগিতা এবং ঐক্যের গুরুত্ব মনে করিয়ে দেয়।

পড়ুনঃ দ্রুত চিকন হওয়ার ওষুধ DETOXI SLIM কিনতে এখনই ক্লিক করুন

সকলের তরে সকলে আমরা

কবি: কামিনী রায়

আপনারে লয়ে বিব্রত রহিতে আসে নাই কেহ অবনী পরে,

সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে আমরা পরের তরে।

যে দিন ও চরণে ডালি দিনু এ জীবন,

হাসি অশ্রু সেইদিন করিয়াছি বিসর্জন।

সেই দিন হইয়েছি সকলের, সকলেই হইয়েছে আমার,

আমরা সকলে মিলে গাঁথিয়াছি এক সূত্রে বন্ধন অমার।

এক মনের, এক প্রাণের, এক সুখে, এক দুঃখে,

একত্রে বাস করি আমরা এই সংসারে।

কেউ ধনী, কেউ দরিদ্র, কেউ উচ্চ, কেউ নীচ,

তথাপি সকলেই আমরা ভ্রাতৃভগিনী।

ধনী দরিদ্রের সেবা করে, ধনী দরিদ্রের হয় সহায়,

উচ্চ নীচের মধ্যে করে না কোন বিভেদ ভাব।

এই ভাব যদি থাকে সকলের মনে মনে,

তবেই সুন্দর হবে এই সংসার, এই জগত মণ্ডল।

সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে আমরা পরের তরে,

এই মন্ত্র সকলে মনে রাখি, সকলে করি একে অপরের সাহায্য।

তবেই হবে সুখের বাস এই সংসারে,

তবেই হবে সুন্দর এই জগত মণ্ডল।

বিশ্লেষণ:

এই কবিতাটিতে কামিনী রায় মানবজাতির মধ্যে ভ্রাতৃত্ববোধ ও সহযোগিতার বার্তা প্রচার করেছেন। তিনি বলেছেন, আমরা সকলেই পরস্পরের সাথে সম্পর্কিত এবং একে অপরের প্রতি দায়িত্বশীল। ধনী-দরিদ্র, উচ্চ-নীচ ভেদাভেদ ভুলে সকলের উচিত একে অপরের সাহায্য করা এবং সবার জন্য কল্যাণ কামনা করা। কবিতাটিতে কবি মানবজাতির ঐক্য ও সহমর্মিতার একটি সুন্দর চিত্র তুলে ধরেছেন।

কবিতাটির তাৎপর্য:

এই কবিতাটির তাৎপর্য অত্যন্ত গভীর। আজকের বিশ্বে যেখানে স্বার্থপরতা ও বিভেদবোধ বৃদ্ধি পাচ্ছে, সেখানে কামিনী রায়ের এই বার্তা অত্যন্ত প্রাসঙ্গিক। আমাদের সকলের উচিত এই কবিতাটি মনে রেখে মানবজাতির ঐক্য ও সহযোগিতার জন্য কাজ করা।

কবিতাটির শিক্ষা:

এই কবিতাটি আমাদের কাছে বেশ কিছু শিক্ষা দেয়। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল:

  • আমরা সকলেই পরস্পরের সাথে সম্পর্কিত এবং একে অপরের প্রতি দায়িত্বশীল।
  • ধনী-দরিদ্র, উচ্চ-নীচ ভেদাভেদ ভুলে সকলের উচিত একে অপরের সাহায্য করা।
  • সবার জন্য কল্যাণ কামনা করা আমাদের কর্তব্য।
  • মানবজাতির ঐক্য ও সহযোগিতার মাধ্যমেই আমরা একটি সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ বিশ্ব গড়ে তুলতে পারি।

সকলের তরে সকলে আমরা

কবি: কামিনী রায়

কবিতা:

সকলের তরে সকলে আমরা,

প্রত্যেকে আমরা পরের তরে।

হাত মিলিয়ে গান গাইলে,

সুখের সুরে ধ্বনিয়ে উঠে জগৎ।

একের দুঃখ, সবার দুঃখ,

একের সুখ, সবার সুখ।

ভাইচারা, মিত্রতা, প্রীতি,

এই মন্ত্রে গড়ে তোলো জীবন।

ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ, ভেদ ভুলে,

মানুষ সকলে একই সার।

সকলের তরে সকলে আমরা,

প্রত্যেকে আমরা পরের তরে।

বিশ্লেষণ:

এই কবিতায় কামিনী রায় মানুষের মধ্যে সহমর্মিতা, ভ্রাতৃত্ববোধ এবং সর্বজনীন প্রেমের বার্তা প্রচার করেছেন। তিনি বলেছেন যে, আমরা সকলেই একে অপরের সাথে সম্পর্কিত এবং আমাদের একে অপরের প্রতি দায়িত্ব রয়েছে। অন্যের দুঃখ-কষ্ট আমাদের নিজেদের দুঃখ-কষ্টের মতোই বেদনাদায়ক এবং অন্যের সুখ আমাদের নিজেদের সুখের মতোই আনন্দদায়ক।

ধর্ম, বর্ণ, লিঙ্গ, ভেদ ভুলে সকল মানুষকে একই সারিতে দেখার আহ্বান জানিয়েছেন কবি। তিনি মনে করেন যে, সকলের মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমেই আমরা একটি সুন্দর ও বাসযোগ্য পৃথিবী গড়ে তুলতে পারি।

গুরুত্ব:

এই কবিতাটি আমাদের সকলের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষা বহন করে। এটি আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে, আমরা কেবল নিজের জন্য নই, বরং সমাজের জন্যও বেঁচে আছি। অন্যের প্রতি আমাদের দায়িত্ব রয়েছে এবং তাদের সুখ-দুঃখে আমাদের অংশীদার হওয়া উচিত। সকলের মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমেই আমরা একটি সুন্দর ও সমৃদ্ধ সমাজ গড়ে তুলতে পারি।

আশা করি এই তথ্যটি আপনার জন্য সহায়ক হয়েছে।

“সকলের তরে সকলে আমরা”

কবি: কামিনী রায়

সূচনা:

আপনারে লয়ে বিব্রত রহিতে আসে নাই কেহ অবনী পরে, সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে আমরা পরের তরে।

মূল অংশ:

  • মানবজীবনের উদ্দেশ্য: কবি বলেন, মানুষের জীবনের উদ্দেশ্য কেবল নিজের সুখ-সমৃদ্ধি অর্জন করা নয়। বরং, সকলের জন্য কল্যাণ সাধন করা মানুষের প্রকৃত কর্তব্য।
  • সহযোগিতা ও সহমর্মিতা: মানবজাতি একটি বৃহৎ পরিবার। এই পরিবারের সকল সদস্যের উচিত একে অপরের প্রতি সহানুভূতিশীল হওয়া এবং সহযোগিতা করা।
  • পরার্থপরতা: কবি মানুষকে পরার্থপর হওয়ার আহ্বান জানান। অর্থাৎ, নিজের সুখ-দুঃখের চেয়ে অন্যের সুখ-দুঃখকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া উচিত।
  • সামাজিক দায়িত্ব: সমাজের প্রতি প্রত্যেকেরই কিছু দায়িত্ব রয়েছে। এই দায়িত্ব পালন করেই সমাজের উন্নতি সম্ভব।
  • মানবিক মূল্যবোধ: সত্য, ন্যায়, প্রেম, সহানুভূতি – এইসব মানবিক মূল্যবোধকে জীবনে ধারণ করা উচিত।

উপসংহার:

কবি শেষে বলেন, মানুষ যদি সকলের জন্য কল্যাণ কামনা করে, তাহলে পৃথিবী হয়ে উঠবে এক সুন্দর ও বাসযোগ্য স্থান।

এই কবিতার তাৎপর্য:

  • এই কবিতা আমাদেরকে পরার্থপরতা ও সহযোগিতার শিক্ষা দেয়।
  • মানবজীবনের উদ্দেশ্য সম্পর্কে আমাদেরকে সচেতন করে তোলে।
  • সামাজিক দায়িত্ব পালনের গুরুত্ব বোঝায়।
  • মানবিক মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে অনুপ্রাণিত করে।

কবিতাটির সৌন্দর্য:

  • কবিতাটি সরল ও সাবলীল ভাষায় রচিত।
  • কবির ভাবনা চিন্তাভাবনা স্পষ্ট ও সুন্দরভাবে প্রকাশিত হয়েছে।
  • উপমা ও রূপকের ব্যবহার কবিতাকে করেছে আরও আকর্ষণীয়।
  • কবিতার ছন্দ ও তাল পাঠকের মনে এক অপূর্ব অনুভূতি জাগিয়ে তোলে।

উল্লেখ্য:

  • এই কবিতাটি বাংলা সাহিত্যের একটি অমূল্য সম্পদ।
  • ছোটবেলা থেকেই শিশুদের এই কবিতাটি শেখানো উচিত।
  • এই কবিতার শিক্ষা আমাদের ব্যক্তি ও সমাজ উভয়ের জন্যই কল্যাণকর।

পড়ুনঃম্যাজিক কনডম কিনতে এখনই ক্লিক করুন

আরো পড়ুনঃ দ্রুত চিকন হওয়ার ওষুধ DETOXI SLIM কিনতে এখনই ক্লিক করুন

আরো পড়ুনঃ আ দিয়ে মেয়েদের ইসলামিক নাম/ আ দিয়ে মেয়েদের  ইসলামিক নাম

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “সকলের তরে সকলে আমরা কবিতা”

Your email address will not be published. Required fields are marked *